এরিনা অফ ভ্যালর এ আই সি সাউথ এশিয়া কোয়ালিফায়ার্স- এর সফল আয়োজন সম্পন্ন।

হাছিবুর রহমান | প্রকাশিত: ০৪ এপ্রিল ২০২২ |   

মাল্টিপ্লেয়ার অনলাইন ব্যাটল এরিনা গেইম, এরিনা অফ ভ্যালর বাংলাদেশ, অত্যন্ত সফল ভাবে এআইসি সাউথ এশিয়া কোয়ালিফায়ার্স -এর আয়োজন সম্পন্ন করেছে। এই প্রথম বারের মতো বাংলাদেশ এত বড় একটি আন্তর্জাতিক ই-স্পোর্টস টুর্নামেন্ট আয়োজন করার গৌরব ও সুযোগ অর্জন করলো। বাংলাদেশ,  পাকিস্তান, মিয়ানমার ও কম্বোডিয়া থেকে আঞ্চলিক পর্যায়ে বিজয়ী দলগুলো টুর্নামেন্টের চুড়ান্ত প্রতিযোগিতায় প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে৷  এই উত্তেজনাময় ই-স্পোর্টস প্রতিযোগিতার পুরস্কারের মোট মূল্য মান ৭৫ লাখ টাকা যা সত্যিই খুবই আকর্ষণীয়। আর এখানে সহায়ক পার্টনার হিসেবে ইনফিনিক্স মোবাইল বাংলাদেশ তার সর্বাধিক জনপ্রিয় ও ট্রেন্ডিং স্মার্টফোন হট ইলেভেন এস এর সাথে আছে এই সর্ব বৃহৎ ই-স্পোর্টস অফলাইন গেইমিং ইভেন্টটির পাশে।    

আঞ্চলিক পর্যায়ে জয় লাভ করা আটটি দলের সদস্যরা সম্প্রতি ঢাকার পূর্বাচল এক্সপ্রেস হাইওয়েতে অবস্থিত আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় চুড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছে। এই গ্র‍্যান্ড ফাইনালের বিজয়ী দল সামনে  বিশ্ব পর্যায়ে এরিনা অফ ভ্যালর খেলার সুযোগ লাভ করবে। এখানে উল্লেখ্য যে, এবারে এশিয়ান গেইমস ২০২২ অনুষ্ঠিত হবে চায়নায়, সেপ্টেম্বর মাসে। এরিনা অফ ভ্যালর এখানে একটি মেডেল ইভেন্ট হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।  

চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অত্যন্ত উত্তেজনাকর এই ফাইনাল ইভেন্টে বাংলাদেশ থেকে চারটি,  পাকিস্তান থেকে দুইটি এবং মিয়ানমার ও কম্বোডিয়া থেকে একটি করে টিম অংশগ্রহণ করেছে। বহুল প্রতীক্ষিত ও শ্বাসরুদ্ধকর চুড়ান্ত প্লে-অফে মিয়ানমারের "স্টারি হোপ" টিম চ্যাম্পিয়ন হয়েছে এবং প্রথম রানার আপের স্থান লাভ করেছে আমাদের বাংলাদেশের টিম " মার্টার্স ব্রুট ফোর্স ডিমেনটরস"।  বাংলাদেশের বাকি টিমগুলো অর্থাৎ " উই ইস্পোর্টস আর্মাডা", "ভেনোম ইস্পোর্টস " এবং " উই ইস্পোর্টস ওরিয়েন্টাল ফিনিক্স" যথাক্রমে তৃতীয়,  চতুর্থ ও পঞ্চম  স্থান অধিকার করেছে। বিজয়ী দলগুলো  অত্যন্ত আনন্দ সহকারে এই টুর্নামেন্টের ব্যাপারে তাদের উৎসাহ- উদ্দীপনা এবং সম্পূর্ণ  সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। 


এই টুর্নামেন্টে উজ্জ্বল উপস্থিতি ছিল অনেক তারকার।  এসেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ,  সৌম্য সরকার,  তাহসান খান, মোহাম্মদ আশরাফুল,  মুমতাহিনা টয়া এবং সৈয়দ জামান শাওন।  এরিনা অফ ভ্যালর, বাংলাদেশ  - এর কান্ট্রি হেড কাজী আরাফাত হোসেইন তাঁর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, "  সাউথ এশিয়া পর্যায়ের এত বড় একটি আন্তর্জাতিক ই-স্পোর্টস টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পেরে আমরা খুবই গর্বিত ও আনন্দিত। এই অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক এরিনা অফ ভ্যালর প্লে-অফের প্রতি বিশ্বব্যাপী গেইমারদের বেশ আগ্রহ রয়েছে এবং আমরা আশা করছি যে আমরা এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ থেকে বিজয়ী যে দলগুলো আছে, তাদেরকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারব। "

সৌন্দর্য,  শক্তি আর নতুনত্ব - এই তিনের মিশেলে তৈরি ইনফিনিক্স মোবাইলের হট ইলেভেন এস স্মার্টফোন এর চাহিদা  গেইমারদের মধ্যে খুবই বেশি। তার কারণ হচ্ছে এই ফোনটি গেইমারদের কল্পনাকে বাস্তব রূপ দিতে পারে। হাই এন্ড গেমিং কনফিগারেশন এর এই ফোনটি এখন উল্লিখিত হট সিরিজের স্লোগান 'গেইম অন' নিয়ে বাংলাদেশের বাজেট গেইমিং কমিউনিটিতে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। শক্তির আধার এই ডিভাইসটিতে আছে গেইমিং প্রসেসর হেইলো জি এইট এইট, ৯০ হার্টজ এর এফ এইচ ডি এবং ডিসপ্লে আর বিশাল স্টোরেজ যাতে রয়েছে ৬ জিবি র‍্যাম এবং এবং আরো ৫ জিবি সম্প্রসারিত র‍্যাম। আর এই সবকিছুই মিলবে তুলনামূলক ভাবে অত্যন্ত সহনীয় বাজেটে। আগে যেখানে এই স্মার্টফোন এর মূল্য ১৫, ৯৯০ ছিল, সেখানে এখন বিশেষ মূল্যছাড়ে সারা দেশেই ফিনিক্স হট ইলেভেন এস পাওয়া যাচ্ছে ১৫, ১৯০ টাকায়।

৭৫ লাখ বাংলাদেশি টাকার বিশাল মোট পুরস্কার সম্বলিত এই অত্যন্ত সফল ইস্পোর্টস টুর্নামেন্টটি বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম আয়োজিত হল। এই পুরস্কারের অর্থ আঞ্চলিক পর্যায়ে জিতে আসা দলগুলো এবং চুড়ান্ত প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দলগুলোকে প্রদান করা হয়।


মন্তব্য লিখুন :